মুখ থুবড়ে পড়েছে ‘নিতাইগঞ্জ টু সাইনবোর্ড ইলেকট্রিক ট্রেন’ প্রকল্প

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নিতাইগঞ্জ থেকে সাইনবোর্ড মোড় এবং চিটাগাং রোড হয়ে পঞ্চবটি পর্যন্ত ইলেকট্রিক ট্রেন চালুর প্রস্তাব দিয়ে ছিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন। সরকারের মন্ত্রিসভা কমিটি থেকেও প্রস্তাবে সায় দিয়েছেন। বাকি ছিল সম্ভাব্যতা যাচাই করা। এমন অবস্থায় দাতা সংস্থা না পেয়ে প্রকল্পটি মুখ থুবড়ে পড়েছে।

যোগাযোত খাতের জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাছে প্রস্তাব চাওয়া হয়। ২০১৮ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন থেকে ‘ ইলেকট্রিক ট্রেন চালুর প্রস্তাব’ পাঠানো হয়ে ছিল। নাম দেওয়া হয় ‘নারায়ণঞ্জ সিটি করপোরেশনে লাইট রেল ট্রানজিট (এলআরটি) স্থাপনের নীতিগত প্রস্তাব’। ওই বছরের ২০ নভেম্বর প্রকল্পটিকে সরকারের মন্ত্রিসভার কমিটির অনুমোদন করা হয়ে ছিল।

নীতিগত প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়, বিশ্বের ৩৮৮টি নগরিতে ইলেকট্রিক ট্রেন চালু আছে। নারায়ণগঞ্জের এ প্রকল্পটি ‘জিটুজি’ ভিত্তিতে এবং পিপিপি পদ্ধতিতে বাস্তবায়ন করার কথা ছিল। এর মধ্যে নগরীর নিতাইগঞ্জ থেকে চাষাঢ়া হয়ে সাইনবোর্ড মোড় পর্যন্ত একটি রুটের দৈর্ঘ্য হবে ১১ কিলোমিটার। আর চিটাগাং রোড হয়ে পঞ্চবটি পর্যন্ত আরেকটি রুট ১২ কিলোমিটার দীর্ঘ। ইলেকট্রিক ট্রেন চালু হলে এসব রুটে প্রতিদিন গড়ে ১ লাখ ২০ হাজার যাত্রী যাতায়াত করতে পরতো। দুই লাইনের ইন্টারচেইঞ্জ স্টেশন হতো চাষাঢ়ায়।

এ প্রকল্পটি নিয়ে নারায়ণগঞ্জের নগর পরিকল্পনাবিদ মো. মঈনুল ইসলাম লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, মন্ত্রীসভা থেকে প্রকল্পটি অনুমোতি দিলেও দাতা সংস্থা না পেয়ে প্রকল্পটি এখন বন্ধ রয়েছে।

0