রূপগঞ্জে শিশুর আত্মহত্যা, মা পুলিশের জিম্মায়

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: রূপগঞ্জে এক শিশু(১২) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পিতার দাবী পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে শিশুর মা। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে রূপগঞ্জ উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুর নাম তাওসিফ (১২)। সে উপজেলার ভোলাবো ইউনিয়নের পাইস্কা এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে ও স্থানীয় জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র।

এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে নিহত শিশুর পিতা বাদি হয়ে মা শিলা আক্তার ও তার বর্তমান স্বামী জুলহাসকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

তথ্যটি লাইভ নারায়ণগঞ্জকে নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ সার্কেল) আবীর হোসেন। তিনি বলেন, প্রায় ১ বছর আগে বাদীর স্ত্রী শীলা বেগমের সাথে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। পরে জুলহাস নামের এক ব্যাক্তিকে বিয়ে করে তিনি। মায়ের সাথেই থাকতেন নিহত শিশু। ঘটনার দিন শারীরিক সমস্যার কারণে শিশু তাওসিফকে বাসায় রেখে ডাক্তারের কাছে যান স্বামী-স্ত্রী। ফিরে এসে দেখতে পায় শিশুটি ঝুলন্ত লাশ।

তিনি আরও বলেন, এই ঘটনায় আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে পাঠিয়েছি। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা। তবুও নিহতের পিতার দাবি আত্মহত্যার প্ররোচনার করা হয়েছে। তাই ময়নাতদন্তের রির্পোট হাতে পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবীর হোসেন বলেন, অভিযুক্ত মা শীলা বেগমকে আমরা আমাদের জিম্মায় রেখেছি। তাকে আগামীকাল বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে। বিস্তারিত তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।