র‌্যাবের অভিযানে বন্ধ হওয়া ফেক্টরী ফের চালু: মালিক পলাতক, আটক ১

0

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণণগঞ্জ: সোনারগাঁ থেকে অননুমোদিত কারখানায় ভেজাল ও মানহীন পানীয়সহ অন্যান্য দ্রব্য তৈরির সময় হাতেনাতে একজনকে আটক করেছে র‍্যাব। শনিবার (১৭এপ্রিল) বিকেলে বড়গাঁও চেয়ারম্যানপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।


এসময় তার কাছ থেকে কারখানায় তৈরি অবস্থায় বিপুল পরিমাণ ক্রিস্টাল অরেঞ্জ ফ্লেভার ড্রিংক, লাচ্ছি মিল্ক ফ্লেভার ড্রিংক, ম্যাংগো জুস, ইন্ডিয়ান গুড়া বিট লবণ, ভেজাল জুস তৈরির কাজে ব্যবহৃত কেমিক্যাল ও ভেজাল জুস তৈরির কাজে ব্যবহৃত ফ্লেভার উদ্ধার করা হয়। তবে এ অভিযানের সময় কারখানার মালিক মো. রশিদ আলী কৌশলে পালিয়ে যান।

র‌্যাব-১১ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গ্রেপ্তারকৃকত কবির হোসেন ও পলাতক আসামী রশিদ আলী মিলে কয়েক বছর যাবৎ সোনারগাঁয়ে বড়গাঁও চেয়ারম্যানপাড়া এলাকায় সরকারী অনুমোদন না নিয়ে ‘আর এন আর ড্রিংকস এন্ড এগ্রো প্রোডাক্টস’ নামক ফ্যাক্টরী চালিয়ে আসছিল। ফ্যাক্টরীতে ভেজাল ও মানহীন খাদ্য পানীয় ক্রিস্টাল অরেঞ্জ ফ্লেভার ড্রিংক, লাচ্চি মিল্ক ফ্লেভার ড্রিংকস্, আইস ললী, ম্যাংগো জুস, ইন্ডিয়ান গুড়া বিট লবণ সহ বিভিন্ন ধরনের ভেজাল পানীয় বিএসটিআই এর অনুমোদন না নিয়েই বিএসটিআই এর লোগো ব্যবহার করে উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছে।

তিনি আরও জানান, তারা অবৈধ উপায় অবলম্বন করে ফ্যাক্টরীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল ও মানহীন খাদ্য পানীয় তৈরি করে বাজারজাত করে আসছে যা শিশু ও জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক।

প্রথামিক অনুসন্ধানে জানা যায়,  ‘আর এন আর ড্রিংকস এন্ড এগ্রো প্রোডাক্টস’ ফ্যাক্টরীর নামে কোন ভ্যাট রেজিস্টেশন নেই। তারা কোন প্রকার মূসক প্রদান না করে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে এই সকল অননুমোদিত ভেজাল ও মানহীন খাদ্য পানীয় নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করে আসছিল। এর আগে ২০২০ সালের ১০ আগস্ট একই ফ্যাক্টরিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এরপর ফ্যাক্টরিটি কিছুদিন বন্ধ রেখে আবার চালু করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

0