শ্যালকের স্ত্রীকে শ্লীলতাহানি, আটক দুলাভাই

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নিজ শ্যালকের স্ত্রীকে মারধর ও শ্লীলতাহানি করার অভিযোগে দুলাভাইকে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। পুলিশের দাবি আটককৃত দুলাভাই একজন মাদক ব্যবসায়ী। বুধবার (২২ জুন) ফতুল্লার নন্দলালপুর এলাকার থেকে তাকে আটক করা হয়।

অভিযুক্ত দুলাভাইয়ের নাম, রনি ওরফে পেঁচা রনি (৩৬)। সে ফতুল্লার নন্দলালপুর মসজিদ গলির মো. আব্দুল সালামের ছেলে।

জানা যায়, রনি ওরফে পেচাঁ রনির তার শ্যালক শান্তর স্ত্রী সুমা আক্তার(২৮) কে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বাসায় ঢুকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দসহ মারধর করে। এ সময় পেচা রনি তার শ্যালকের স্ত্রীর পড়নে কাপড় টেনে হিচড়ে ছিড়ে ফেলে শ্লীলতাহানি করে এবং গলায় ও কানে থাকা স্বর্নালংকার ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

মারধরের কারন সম্পর্কে শ্যালক শান্ত জানায়, রনি ওরফে পেচাঁ রনি একজন মাদক ব্যবসায়ী। তাকেও তার সাথে মাদক ব্যবসা করার জন্য প্রস্তাব দিলে সে নিষেধ করে। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে বুধবার বাসায় গিয়ে তাকে গালমন্দ করতে থাকে। এ সময় তার স্ত্রী গালমন্দ করতে নিষেধ করলে রনি ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্ত্রীর তলপেটে সজোড়ে লাথি মারে এবং মারধর করে শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটায়। এমনকি তার স্ত্রীর দেড় ভরি ওজনের স্বর্নালংকার ও ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, শান্ত নিজেও একজন মাদক ব্যবসায়ী। বোন জামাই পেচা রনির হয়েই সে মাদক ব্যবসা করে থাকে। গত কয়েক দিন পূর্বেও শান্ত তার আপন ভাগিনা পেচা রনির ছেলে মাদকসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলো। সূত্রটির দাবী মাদকের কোন বিষয় নিয়েই এ ঘটনা ঘটেছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযুক্ত রনিকে বুধবার গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।