স্ত্রীর যৌতুক মামলায় স্বামীর জেল-জরিমানা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সোনারগাঁয়ে স্ত্রীর করা যৌতুক মামলায় স্বামী মো. সুজনকে ১ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ৪ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করেছে দিয়েছে বিজ্ঞ আদালত। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আলমের আদালত আসামীর অনুপস্থিতিতে এ আদেশ দেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামী মো. সুজন মৃত. মজিবুর রহমানের ছেলে।

রায়ের তথ্যটি গণমাধ্যমকে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন আদালতের স্টেনোগ্রাফার কাম কম্পিউটার অপারেটর (ব্যক্তিগত সহকারী) সাইফুল মীর। তিনি জানান, মামলায় স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বুধবার স্বামী সুজনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমাণিত হয়। এতে বিচার অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড, দশ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো চার মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। এর আগে জামিনে ইলিয়াছ পালিয়ে যায়।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১২ সালের ৬ জানুয়ারি বাদী শ্যামলী আক্তারকে বিয়ে করে সুজন। বিয়ের পর তাদের ঘরে দুটি সন্তান জন্মগ্রহণ করে। একপর্যায়ে আসামী সুজন বাদীনীকে বলে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দেওয়ার জন্য। বাদী দিবে না বলে অস্বীকার করলে তাকে মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়। এরপর আসামী ও তার পরিবার বাদীর পরিবারের বাসায় গেলে আসামী সুজন যৌতুকের টাকা না দিলে তার সাথে সংসার করবে না বলে চলে আসে এবং বলে যায় যেখানে বেশি যৌতুক দিবে সেখানে বিয়ে করবো।